Tuesday, January 8, 2008

প্রথম পরীক্ষা

Title of this post: An Interesting Story of my Exam By Shanta Islam

একটা সময় ছিল যখন আমা এস.এ.সি পরীক্ষার পরিক্ষার্থী দিলাম। সময়টা ছিল ২০০৪ সালের একটি ঘটনা। আমার প্রথম পরীক্ষা ছিল ইংরেজী ১ম পত্র। সবার মত আমিও ঐ দিন পরীক্ষা দিতে যাই। আমার সংগে সেদিন আমার বাবা ও মা আমাকে পোঁছে দেবার জন্য সেখানে যায়। আমার বাবা মা আমাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকিয়ে দিয়ে তারা আমার জন্য বাইরে অপেক্ষা করতে থাকে। ঐ দিন যেহেতু আমার জীবনের প্রথম র্বোড পরীক্ষা সুতরাং স্বভাবতই আমার খুব ভয় লাগছিল এবং ভিতু ছিলাম। একটা সময় পরীক্ষা শুরু হবার ঘন্টা পড়ল এবং আমরা সবাই যে যার আসনে বসে পড়লাম। পরীক্ষা শুরু হয়ে গেল সবাই খাতা এবং প্রশ্ন পেয়ে লিখতে শুরু করলাম। আমার ভয়টা তখনো আমার ভেতর থেকে সম্পূর্ন যায়নি কিন্তু তবুও আমি ভাল পরীক্ষা দিতে চেষ্টা করছি। পরীক্ষা দিচ্ছি এমন সময় অর্থ্যাৎ প্রায় ১ঘন্টার মাথায় আমাদের ক্লাসের সামনে একজন পুলিশকে এসে দাঁড়াতে দেখলাম। এবং তাকে দেখে মনে হচ্ছিল সে যেন কাউকে খুঁজছে। এক সময় সে ক্লাসে ঢুকে পড়ল এবং একটি নাম ধরে বার বার ডাকতে লাগল। সেই সময় যে মানসিক অবস্থা কেমন হয়েছিল আমা বোঝাতে পারবনা। কারন সেই নামটি আর কারো নয় নামটি শান্তা অর্থ্যাৎ আমার নাম। পুলিশ লোকটা বার বার নাম ডাকা সত্ত্বেও যখন কোন সারা পেল না তখন সে আমাদের ক্লাসের দায়িত্বে সে ম্যাডাম ছিল তাকে খুঁজে দেবার জন্য অনুরোধ করল। যদিও আমার ক্লাসের সব বন্ধুরা এবং আমিও জানি নামটি কার তবুও আমরা কেউ মুখ খুলছিলাম না। আমার ক্লাসের সব মেয়েরা বার বার আমার দিকে তাকাচ্ছিল কিন্তু তারাও কিছু বলছিল না। কারন তারা আমার ক্ষতি হোক তা চায়নি। তখন আমার ক্লাস টিচার এবং পুলিশ আমার নাম ধরে ডেকে যাচ্ছে কিন্তু কোন সাড়া পাচ্ছে না। কিন্তু আমি জানতাম আমি নির্দোশ। একসময় আমি আমার আসন থেকে উঠে দাড়ালাম এবং বললাম আমিই শান্তা। পুলিশ লোকটি তখন হাসিমুখে আমাকে আম্মু বলে ডাকদিল এবং আমার পরীক্ষা কেমন হচ্ছে জানতে চাইল। এবং সে আমাকে একটা পানির বোতল দিল আর আমার যদি কোন অসুবিধা থাকে তাহলে তাকে জানাতে বলল। আমি তখনো বুঝতে পারছিনা ব্যাপারটি আসলে কি? পরে জানতে পারলাম লোকটি আসলে আমার বাবার বন্ধু। আর তাছাড়া আমার বাবা নিজেও একজন পুলিশ। ঠিক ঐ মূহুর্তে আমার এই কথাটি মনে ছিলনা।.............