Saturday, October 20, 2007

ক্ষুদে মাছ বিক্রেতা

Title of this post: A child fish seller by Shamima Akter
Content of this post: Author expressed hard life of a working girl in her writing.


আমার নাম আসমা, বয়স ১১ আমরা ৫ বোন ৩ ভাই। ভাইবোনদের মধ্যে আমি ৭ম। আমার ৩ বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। আমরা চার ভাইবোন বাবামার সাথে থাকি। আমার বাবা মাছ বিক্রি করে। আমার বাবার আয় খুব অল্প, এ দিয়ে আমাদের সংসার অনেক কষ্ট করে চালাতে হয়। আমার বড় ভাই গার্মেন্টেসে কাজ করে কিন্তু সে আমাদের কোন খরচ দেয় না। আমার এক ভাই তরকারি বিক্রি করেমাঝে মাঝে ঐ ভাইকে তরকারি বিক্রি করতে সাহায্যে করি আমিও আমাদের সংসারে কিছু সাহায্য করার জন্য ফুটপাতে মাছ বিক্রি করি। মাঝে মইধ্যে একা আবার কখনো আমার বাবার সাথে মাছ বিক্রি করি। ফুটপাতে বসে মাছ বিক্রি করতে খুব কষ্ট হয় তারপরও সংসারের প্রয়োজন মিটানোর জন্য কাজ করতে হয়।

আসমা ফুটপাতে মাছ বিক্রি করছে - ছবি: শামীমা আক্তার

কাজ করার পাশাপাশি আমি একটা কর্মজীবী শিশুদের স্কুলে ৪র্থ শ্রেনীতে পড়ি। ভোর বেলা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মাছ বিক্রি করে ২টা থেকে স্কুলে পড়তে যাই। লেখাপড়া করতে খুব ভাল লাগে। স্কুলের পড়া শেষে ঘরের কাজে মাকে সাহায্য করতে হয়। তাই মাঝে মধ্যে ইচ্ছে থাকলেও বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা করতে পারি না।

এই আসমার মত নাম না জানা অনেক শিশুই আছে যাদেরকে সংসারের প্রয়োজনে কর্মসংস্থান বেছে নিতে হয়। তাদেরকে শৈশবের হাসি আনন্দকে বিসর্জন দিয়ে জীবিকার তাগিদে অনেক ঝুকিঁপূর্ন কাজ করতে হয়।