Wednesday, November 14, 2007

পারিবারিক নির্যাতন ফোরাম: নিউ ওয়ার্ক সিটি, ইউ এস এ

Title of this post: "Domestic Violence Forum: New York City, USA" by Dr. Kathryn Ward (English) and translated by Taslima Akter

এন ওয়াই সি কমিউনিটি পারিবারিক নির্যাতন নিয়ে আলোচনা করার জন্য অনেক বেশি সুযোগ সুবিধা দরকার।

আধুনিকা এবং সখী-জেন২ আপনাকে আসন্ন পারিবারিক নির্যাতন আউটরিচ পরিকল্পিত ফোরামে অংশ গ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছে। পারিবারিক নির্যাতনের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল কোয়ালিশন এর প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রতি চার জনে একজন মহিলা পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হয়। সকল সমাজ এবং সংস্কৃতির মাঝে এটি মহামারীর ন্যায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। ইহা সকল বয়সের ব্যক্তি, অর্থনৈতিক ক্ষেত্র, জনগোষ্ঠী, ধর্ম, জাতীয়তা কিংবা শিক্ষা ক্ষেত্রে ক্ষতিকর প্রভাব বিস্তার করে। পারিবারিক নির্যাতন হচ্ছে অন্যতম একটি অপরাধ এবং এর ভোগান্তি জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত।

আমাদের সমাজে পারিবারিক নির্যাতন সম্বন্ধে আরও খোলাখুলি আলোচনা করা প্রয়োজন। এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে আমরা আমাদের নিজেদেরকে এবং সমাজকে শিক্ষিত করে তুলতে হবে পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ এবং ইহার বিরুদ্ধে আমাদের সাড়া দিতে হবে।

দয়া করে এগিয়ে আসুন এবং আমাদের সমর্থন দেখান পারিবারিক নির্যাতন ইস্যু সম্বন্ধে সখী উকিলদের কথা শুনুন এবং জানুন আমাদের সমাজের পারিবারিক নির্যাতনের প্রতিরোধে আপনি কিভাবে সাহায্য করতে পারেন।

এখানে বিস্তারিত রয়েছে:

তারিখ: রবিবার,১৮ই নভেস্বর
সময়:
অপরাহ্ন ৬:৩০ - ৮:৩০
স্থান: ওয়াল্ড কালকার ওপেন সেন্টার

১৯ পশ্চিম ২৬ নং রাস্থা, ৫ম তলা (ব্রডওয়ের কাছের সংযোগস্থলে এবং ২৬ নং রাস্তা)

নিউ ইয়র্ক, এন ওয়াই ১০০০১

সাবওয়ে: দ্যা স্ট্রীট অন দ্যা এন/আর/ডাব্লিও লাইন

পরিসর সীমিত তাই দয়া করে আর এস ভি পি করুন, ১৪ই নভেম্বর বুধবার
dva@adhunika.org

আয়োজকেরা:
সখী একটি মনহাট্টান ভিত্তি সংস্থা দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের জন্য(
www.sakhi.org) যা দক্ষিণ এশিয়ায় সৃষ্ট নারীদের বিরূদ্ধে নির্যাতনের সমাপ্তি করতে দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। সখী সকল দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের জন্য আন্দোলন সৃষ্টি এবং নিরাপদ পরিবেশ গড়তে মাঠ পর্যায়ে কাজ, উকালতি, নেতৃত্বে উন্নতি এবং সংগঠনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

আধুনিকা (www.adhunika.org) একটি বিশ্বব্যাপি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান যা বিশ্বব্যাপি প্রযুক্তির বর্ধিত ব্যবহারে বাংলাদেশের নারীদের জন্য নিয়োজিত আছে। প্রযুক্তির ব্যবহারের মধ্য দিয়ে নারীদের সামাজিক অবস্থার পরিবর্তন করাই আধুনিকার লক্ষ্য।