Thursday, January 24, 2008

ছেলে বেলায় শোনা রূপকথা

Title of this post: Fairy tales that I heard in my childhood by Nilufa Akter

প্রথম অংশ
এক গ্রামে এক কৃষক ছিলতার স্ত্রী ছিল এবং তাদে একটি মেয়ে ছিলকিন্তু তাদে খুব অভাব ছিলকৃষকের দুই বিঘা জমি ছিলসেই জমি চাষ করত এবং যা ফসল আসত তাই দিয়ে কোন রকম তাদে চলত গ্রামে রাজা ছিলতার একটি রাজকুমার পুত্র ছিলসে একদিন বনে শিকার করতে যায় পথে হঠা সাপে কাঁটেএরপর রাজা গ্রামের সকলের কাছে রাজ কুমারের জীবন বাঁচাতে আবেদন করে কিন্তু গ্রামের কেউ এলো নারাজা গ্রামের সকলের কাছে বলে, যে যা চাইবে তাই পাবে তার বদলে রাজ কুমারের জীবন ফিরে পেতে চায়হঠা কৃষকের মেয়েটি বলে আমি রাজিমেয়েটি রাজ কুমারকে সুস্থ রে তুলেমেয়েটিকে রাজা জিজ্ঞাসা করে কি চাও, মেয়েটি কোন উত্তর দিল নারাজা কৃষকের কথা ভেবে, কৃষকে ৬ বিঘা জমি দিয়ে দিলকৃষক তার মেয়েটিকে নিয়ে বাড়ি চলে যায়কৃষক সব জমি চাষ করে নেক ফসল পেয়ে বাজারে বিক্রি করে নেক মূল্য পায় তাই দিয়ে নতুন ঘর তুলেতার মেয়েটিকে বিয়ে দিয়ে দেয়এরপর কৃষকরা সুখে শান্তিতে বসবাস করতে লাগলোতাদের জীবনে আর আভাব রইল না.......

দ্বিতীয় অংশ
এক শহরে একটি পরিবার ছিলবাবা, মা ও একটি মেয়ে ছিলছুটিতে তারা সবাই বর্ষাকালে বেড়াতে যায় সুন্দরবন এবং ঘুরে ফিরে দেখে সুন্দরবনহঠা আকাশে মেঘ ডাকে সকলে ভয় পায়, তাড়াতাড়ি করে লঞ্চে উঠে চলে যায়বাবা, মা ভুলে মেয়েকে রেখে যায়মেয়েটি সারাদিন নদীর ধারে বসে থাকেমেঘ ডাকে তাতে মেয়েটি ভয় পায়এবং বৃষ্টিতে ভিজে মেয়েটি আসুস্থ হয়ে পড়েএমন সময় একটা লোক এসে মেয়েটিকে দেখে, তার বাড়িতে নিয়ে যায়ডাক্তার দেখিয়ে সে মেয়েটি কে সুস্থ করে তুলে কিন্তু মেয়েটি তার বাড়ি ঠিকানা বলতে পারে নাসেই থেকে মেয়েটি সেখানে থোকে যায়..........