Saturday, January 26, 2008

ছোট মনের আনন্দ বেদনা !!!

Title of this post: An emotion of a child By Mayanur Akter Maya
Content of this post: A mother wrote on her child’s thinking and emotion.

আমার সেই ছোট সোনামণির কথা বলছিযাকে ঘিরে আমার সমস্ত সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা যাকে ঘিরে আমার সকল আশাসে হচ্ছে আমার একমাত্র মেয়ে, কাজী জান্নাতুল ফেরদৌস (মীম)

মীম

শুধু আমি কেন? প্রত্যেক মা-ই তার সন্তানদেরকে নিয়ে এরকম করে স্বপ্ন দেখেআমিও দেখিআমার সমস্ত মন প্রাণ জুড়ে তার অস্তিত্বসেদিনের কথা বলছিতারিখটা ছিল ২৮/১২/০৭সেদিন ছিল মীমের ফুপাতো বোন ইয়াসমিন দোলন (বৃন্তি)-র জন্ম দিনমীম বৃন্তির চেয়ে বয়সে বড়বৃন্তির জন্ম দিন পালন করা হবে ফ্যান্টাসী কিংডমেআমরা সবাই সেখানে গেলাম মীম তো খুব খুশিযাওয়ার আগে প্রতিমুহুর্তে আমাকে জিজ্ঞেস করে বলত, “আম্মু আর কতদিন পর ২৮ তারিখ আসবে?” আমার অনেক সময় অনেক জায়গায় যেতে ইচ্ছে করে নাতারপরও নিজের অনিচ্ছা থাকা সত্বেও যেতে বাধ্য হইকারণ আমার মনে হয় আমার ইচ্ছের চেয়ে বেশী বড় হচ্ছে আমার মেয়ের আনন্দটা

নতুন নতুন জায়গায় যাবে, নতুন কিছু দেখবে, অজানা কে জানবেআমি সেজন্য একটু সময় পেলেই আমার সোনামণিকে কোথাও না কোথাও নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করিসেই দিন ফ্যান্টাসী কিংডমে আমার মেয়ের আনন্দ দেখে সত্যি আমি অনন্দিত হয়েছি

বাবা ও ফুফাত বোনদের সাথে মীম

ছোট্ট মনের যে শুধু আনন্দ তা নয়, ছোট মনে যত তাড়াতাড়ি আনন্দ পায়, সে রকম আবার দুঃখও পায় অনেকযা সহজে বুঝানো যায় নাসবাই মিলে যে যার ইচ্ছে মত বিভিন্ন রাইডারে চড়ে সন্ধ্যা ৭ টায় কেক কাটার জন্য একসাথে জড়ো হলামকেক কাটার আগে সারাক্ষণ শুধু আমাকে বলতে লাগল, কখন কেক কাটা হবে আম্মু? যখনি কেক কাটা শুরু হল সবাই হ্যাপি বার্থ ডে টু ইউ বৃন্তি ...... বলতে লাগল তখনি মীমের মন খারাপ হয়ে গেলআমার কাছে এসে মন খারাপ করে বলতে লাগল, ম্মু সবাই শুধু বৃন্তি বলে! কেউই আমার নাম বলেনা কেন? তাকে আবার বলতে হল, তুমি কি বুঝতে পারছ না আজ তো বৃন্তির জন্ম দিন, তাই বৃন্তিকে বলছেএই কথাটা ওকে অনেক বার বুঝাতে হচ্ছিল আমাকেশিশু মনে সাধারণ কথাই লেগে যায়আবার সহজে তা ভুলেও যায়এ যে ছোট্ট মনের চিন্তা চেতনা সত্যি খুব আনন্দময়এই কথাগুলো অন্য লোকদের কাছে ভাল না লাগলেও বাবা মার কাছে স্মৃতিময় হয়ে থাকে জীবন

মা ও ফুফাতো বোনের সাথে মীম

ছোট্ট মনে কতশত প্রশ্ন জাগে, নতুন কিছু দেখলেই সেটা জানার যে গ্রহ তা ছোটদেরকে না দেখলে বুঝা যায় নাকেক কাটা শেষ আবার তার বায়না, আম্মু আমার জন্ম দিন কখন আসবে? আমি যখন বললাম ১ জুন, মীম বলল, এত দেরি কেন? আমি বললাম, বেশী দিন নেইএই তো কিছু দিন পরই তোমার জন্ম দিন সে বলল, আম্মু জন্মদিন কিন্তু এখানে করতে হবে যে, ছোট মনের চাওয়া পাওয়াচেয়ে যদি কিছু না পায়, তাহলেই ওদের মনের মধ্যে একটা কষ্টের জন্ম হয়সেই কষ্ট সহজে দূর করা যায় না তাদের মন থেকেতাই আমি যেটা করতে পারবনা সেটা কখনও বলিনামীম আবার বলতে লাগল, আম্মু আমি জানি তুমি আমার জন্ম দিন এখানে করবে না আমি বললাম, কি ভাবে বুঝলে ? মীম বলল, যে তুমি কিছু বলছ নাআমি জানি তুমি আমার সাথে মিথ্যে কথা বলনাতাই চুপ করে আছ

ফুফাতো বোনের জন্মদিনে বাবা, ফুফু ও ফুফাতো বোনদের সাথে মীম

আমি সব সময় চেষ্টা করি আমার মেয়ে যেন কোন কারণে আমার উপর কোন কিছু নিয়ে বিরক্ত না হয়আমি চাই আমি যেন আমার মেয়ের একজন অর্দশ মা এবং বন্ধু হতে পারিভবিষ্যতে আমার মেয়ে যেন কোন কিছু আমার কাছে গোপন না রাখেআমাকে যেন ভয় না পায়আমার উপর যেন সম্পুর্ন আস্থা থাকেআমার মেয়ে মাঝে মাঝে এমন কথা বলে শুনলে মনেই হয় না যে ও বলেছে

এক দিন আমি ওকে মেরেছি, খেতে চায়না তাইওর বাবা আমাকে যখন বলল, মেয়েকে কেন মেরেছ? বাচ্চাদেরকে এরকম করে মারতে হয় নাআর কোন দিন মারবে না সে কথা শুনে আমার মেয়ে কান্নার মাঝে বলতে লাগল, বাবা আমার আম্মুকে কিছু বলবে নাআমার আম্মুর কোন দোষ নাইআমি দুষ্টমি করেছি তাই আম্মু মেরেছে ওর বাবা হাসতে হাসতে আমাকে বলল, দেখ মেয়ে কি বলেযার জন্য তোমায় বললাম সেই আমাকে উল্টা বলছে ওর বাবা আবার বলল, তাহলে তো তুমি জান দুষ্টমি করলে মারবে, তাহলে দুষ্টমি কর কেন? মীম বলল, বাবা আমি তো ছোট্ট আর ছোটরা তো মাঝে মাঝে দুষ্টমি করেই আমার মেয়ের এই কথার পর আমি আর ওকে দুষ্টমি করলেও মার দেই নাকেউ যদি কখন ওকে জিজ্ঞেস করে, তুমি কাকে সবচেয়ে বেশী ভালবাস?মীম বসময় বলে বাবা ও মাকেসব সময় বলে বাবা মা দুজনকেইকোন দিনও এক জনের কথা বলে না

মাঝে মাঝে খুব মন খারাপ করে বসে থাকেযদি বলি মা-মণি, কি করছ এখানে আস মীম বলে, আমাকে কিছু বলনা আমার মন খারাপ!! সে বলে চুপ করে বসে থাকেআমার মেয়ের খুব রাগসে যা বলবে সবার তাই শুনতে হবেযদি তার কথা কেউই না শুনে সেই তাকে আর পছন্দ করে না তার ছায়াটা ও দেখতে পারে নাযা চাবে তাই দিতে হবেআমি একদিন মেয়েকে বলি, মা-মণি তোমার যে রাগ আল্লাহ জানে তুমি বড় হয়ে কি হবে মেয়ে আমাকে বলে, আম্মু তুমি না কিছু বুঝনা, আমি বড় হয়ে ডাক্তার হব আমি যদি কোথায় ওকে না নিয়ে চলে যাইখুব মন খারাপ হয়বলে, আম্মু আমি না বলেছি যে তুমি অফিসে গেলে আমাকে নিয়ে যেতে হবে নাআর অফিস ছাড়া যে কোন জায়গায় যাও আমাকে নিয়ে যাবে